Sun. Apr 21st, 2024

পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রচার বেরিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তৃণমূল সুপ্রিমোর পার্থ চট্টোপাধ্যায় সংক্রান্ত উক্তিকে কটাক্ষ বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের

1 min read

আজকেরবার্তা, বালুরঘাট, ২৬জুলাইঃ তৃনমুল সুপ্রীমোর পার্থ চ্যাটার্জীর গ্রেফতারের প্রসংগে করা বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদ মধ্যমের সামনে মুখ খুললেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। মঙ্গলবার দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় নিজের সংসদীয় ক্ষেত্রের দলের বিভিন্ন বুথ কমিটির নেতৃবৃন্দর সাথে বৈঠকে সারার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন দল যখন পার্থ বাবুকে ঝেড়ে ফেলতে চাইছে তখন পার্থ চ্যাটার্জীর উচিত মুখ খোলা। আর উনি মুখ খুললেই আমাদের জেলার নেতা নেত্রীদের বাড়ি থেকে পাওয়া যাবে ভুড়ি ভুড়ি এডমিট কার্ড।
এই প্রসংগে তিনি আরো বলেন পার্থ বাবুর উচিত সমস্ত কিছু বলে দেওয়া, এর সাথে কারা কারা জড়িত রয়েছে কারা কারা চুরি করেছে, সব বলে দিলেই দেখতে পাবেন প্রত্যেক জেলাতেই চাকরি পাইয়ে দেওয়ার এজেন্ট রয়েছে, এই জেলাও বাদ নেই, বলে মন্তব্য করেন সুকান্ত বাবু।

সামনেই পঞ্চায়েত ভোট সে দিকে লক্ষ রেখেই নিজের বালুরঘাট সংসদীয় ক্ষেত্রে বুথ কর্মীদের পাশাপাশি এলাকার বাসিন্দাদের সাথে কথা বলে একদিকে যেমন দলের কর্মীদের মনোবল ও দলের শক্তিকে ধরে রাখার প্রয়াস চালাচ্ছেন এই বুথ কমিটির সাথে বৈঠকের মধ্যমে। তেমনি স্থানিও মানুষজনদের ভাল মন্দের কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় জোযনায় আসা বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের সুযোগ সুবিধে গ্রামীন স্তরের মানুষজন পাচ্ছেন কিনা তার খোজখবর নিয়ে এলাকার মানুষদের সাথে যোগাযোগ সুত্রটা আরেকবার ঝালিয়ে নিচ্ছেন ২০২৪ এর লোকসভা ভোটের আগে ২০২৩ এর পঞ্চায়েত ভোটকে সামনে রেখে।

রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত বাবু এ বিষয়টি স্বিকার করে নিয়ে আরো জানান তারা বুথ কমিটির পাশাপাশি মানুষের সাথে কথা অভাব অভিযোগ শুনছি। কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সুযোগ সুবিধে কতখানি পাচ্ছেন কি পাচ্ছেন না তা নিয়ে খোজ খবর যেমন নিচ্ছি। তেমনি তার লিস্ট ও তৈরি করছি। প্রয়োজনে সেগুলি কেন্দ্রীয় গ্রামীন দফতরে পাঠিয়ে তদন্ত টিম পাঠানোর আবেদন করব, বলে তিনি জানান। তার অভিযোগ আমরা সবাই জানি এই সরকার কেন্দ্রের সব প্রকল্প নিজেদের নামে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চালিয়েছে। তাই তদন্তের প্রয়োজন আছে বলেই মনে করি।

এর পাশাপাশি মালদা জেলার কালিয়াচকে বা মানিকচকে ঘন ঘন বোমা বিস্ফোরন ও প্রচুর বোমা উদ্ধারের প্রসংগে বলেন মালদাতে এন আই এর তদন্তে আসা উচিত। তার আরো বক্তব্য গত বছর মালদা শহরে টোটোতে বোমা বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটেছিল। পুলিশ সুপার তাকে ব্যাটারি ফেটেছে বলে বিষয়টি আড়াল করবার চেষ্টা চালিয়েছিল, তাই এন আই এর তদন্ত হওয়া উচিত বলে আমরা মনে করি। তাই আমরা মনে করি মানুষকে সজাগ হতে হবে ও মানুষকেই এ বিষয়ে এগিয়ে আসতে হবে, বলে রাজ্য বিজেপির সভাপতি জানান।

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.