Mon. May 27th, 2024

পূজার আগে গঙ্গার ভাঙ্গন মালদায়, আতঙ্কিত এলাকাবাসী।

1 min read

আজকের বার্তা, মালদা, ২৪ সেপ্টেম্বর- পূজার আগে গঙ্গার ভাঙ্গনে আতঙ্কিত এলাকাবাসী। মালদার কালিয়াচক ৩ নম্বর ব্লকের পারদেওনাপুর ও শোভাপুর অঞ্চলের বিস্তীর্ণ এলাকায় হটাৎ করে গঙ্গার জল বেড়ে যাওয়ায় প্লাবিত। জলের তোরে রাস্তা ভেঙে যাওয়ায় বিচ্ছিন্ন হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। রাস্তার ওপর দিয়ে হু হু করে গ্রামে ঢুকছে গঙ্গার জল। সাথে গঙ্গার তীরে চলছে লাগাতার ভাঙ্গন। পুজোর আগে গঙ্গার এই রূপে আতঙ্কিত পারদেওনাপুর ও শোভাপুর অঞ্চলের মানুষ।

মালদার গঙ্গা নদীর জলস্তর বিপদসীমা ছাড়িয়েছে। হটাৎ জল বেড়ে যাওয়ায় কালিয়াচক ৩ নম্বর ব্লকের পারদেওনাপুর ও শোভাপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার একাধিক গ্রামে ঢুকছে জল। ইতিমধ্যে রাস্তার ওপর দিয়ে বইছে গঙ্গার জল।সেই জলের তোরে ভেঙেছে রাস্তা, ফলে গ্রামে ঢুকছে জল। বিচ্ছিন্ন হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। সাথে লাগাতার চলছে গঙ্গার পারে ভাঙ্গন। পারদেওনাপুর ও শোভাপুর অঞ্চলের পোস্ট অফিস পাড়া, হাজী পাড়া, তিন নম্বর কলোনি, চার নম্বর কলোনি সহ একাধিক গ্রামে ইতিমধ্যে ঢুকেছে গঙ্গার জল। বৈষ্ণবনগরের টাউনশিপ মোড় হতে পারলালপুর ঘাট যাওয়ার রাস্তা জলের তোরে ভেঙে যাওয়ায় বিচ্ছিন্ন হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। পুজোর আগে গঙ্গার জল গ্রামে ঢোকায় জলজন্ত্রনার আতঙ্ক ছড়িয়েছে গ্রাম জুড়ে।

গ্রামবাসীরা জানান, জল ঢুকছে গ্রামে, নদী তীরে ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। নদীর গর্ভে তলিয়ে গেছে বহু গাছপালা জমি। পুজোর মরশুমে গঙ্গার জল গ্রামে ঢোকায় কার্যত জলবন্দি হয়ে থাকতে হচ্ছে তাদের। পুজোর আগে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় মানুষের প্রাত্যাহিক জনজীবন ব্যাহত হচ্ছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনও রকম ব্যবস্থা এখনো হয়নি।এখন শুধু অপেক্ষা, এই পরিস্থিতি কাটিয়ে কবে স্বাভাবিক জীবনে ফিরবেন গ্রামের মানুষ গুলো। সেই উৎকণ্ঠায় দিন কাটছে গ্রামের পরিবারগুলির।

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.