Sun. May 26th, 2024

ভারতে আত্রেয়ীর জল ধরে রাখার উদ্দেশ্যে দেওয়া চেক ড্যাম এবার জীবিকা বাঁচানো ভারতের আত্রেয়ী পাড়ের মানুষদের।

1 min read

আজকেরবার্তা বালুরঘাট, ২৩ জুন: রাবার ড্যামে আটকে রাখা আত্রেয়ী নদীর জল ছাড়লো বাংলাদেশ। ফলে মৃতপ্রায় নদী ফিরে পেল প্রাণ। কিন্তু এবারে হরপা বানে ভেষে যাইনি আত্রেয়ী। চেক ড্যামের কারণে জল ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে আত্রেয়ী নদী।

রাবার ড্যামের জল ধরে রাখার লক্ষে বালুরঘাট শহরের বুকে আত্রেয়ী নদীর উপর দেওয়া চেক ড্যামের পরিকল্পনায় আবারো প্রমাণ পাওয়া গেলো মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির দূরদর্শিতার। রাবার ড্যামের মাধ্যমে আত্রেয়ী নদীর জল ধরে রাখছিল বাংলাদেশ। আর জলের অভাবে কৃষক থেকে মৎসবীজি সকলেই সমস্যার সম্মুখীন হয় প্রতিবছর।

চলতি বছরেও একইভাবে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় বৃষ্টিপাত হয়নি। কিন্তু বাংলাদেশে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত হওয়ায় আত্রেয়ী নদীতে জল ভরে যায়। তাই হঠাৎ বাংলাদেশ সরকার শুক্রবার সকালে জল ছেড়ে দেয় রাবার ড্যামের। যার ফলে ভাতরে বয়ে চলা মৃতপ্রায় আত্রেয়ী নদী জলে ভরে যায়।

প্রসঙ্গত, প্রসঙ্গত, আত্রেয়ী নদীর উপর বাংলাদেশের দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ি রোডের মোহনপুর এলাকায় চায়না হাইড্রোলিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর উদ্যোগে রাবার ড্যাম তৈরি করে বাংলাদেশ সরকার। এই রাবার ড্যাম তৈরি করার পর থেকেই ভারতের আত্রেয়ী নদীতে জলের সমস্যা দেখা দিতে থাকে। রাবার ড্যামের মাধ্যমে আত্রেয়ী নদীর জল আটকে দেয় বাংলাদেশ সরকার। যার ফলে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় দক্ষিন দিনাজপুর জেলার বাসিন্দাদের।

কৃষি প্রধান জেলা দক্ষিন দিনাজপুর। কৃষক ও মৎস্যজীবীদের জীবন প্রবাহ জড়িয়ে রয়েছে আত্রেয়ী নদীর সাথে। কিন্তু বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া রাবার ড্যামের পর থেকে ভারতে প্রবাহিত আত্রেয়ী নদীর জলে টান পড়ে। আত্রেয়ী নদীর জল কমে যাওয়ার একাধিক আন্দোলন দেখা দেয় জেলা জুড়ে। একাধিক বার মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন করা হয় আত্রেয়ীর জলের সমস্যা নিয়ে।

অবশেষে, দক্ষিন দিনাজপুর জেলার খড়া প্রবন এলাকার মানুষদের জীবিকার কথা মাথায় রেখে ২০২২ সালের জানুয়ারি মাসে উত্তর দিনাজপুর জেলায় একটি সভা করতে এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দেন বালুরঘাট শহরের চকভবানী একালায় আত্রেয়ী নদীর উপর বাঁধ তৈরি করার। ১০ কিলোমিটার জল ধরে রাখার লক্ষে আত্রেয়ী নদীর উপর এই বাঁধ নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করে রাজ্য সরকার।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশের পর আত্রেয়ী নদীর উপরে বাঁধ নির্মাণের কাজ শুরু হয়। বাঁধ নির্মাণের কাজ চলাকালীন হঠাৎ আত্রেয়ী নদীতে জল বেড়ে যাওয়ায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল বাঁধ নির্মাণের কাজ। বন্যার প্রবাহ কমে যাওয়ার পর আবারও বাঁধ নির্মাণের কাজ শুরু করে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন। কৃষক ও মৎস্যজীবীদের জীবিকার কথা মাথায় রেখে ১০ কিলোমিটার আত্রেয়ী নদীর জল ধরে রাখার লক্ষ্যে এই বাঁধ দেওয়া হয়েছে।

চলতি বছরে দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় খড়া পড়ায় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ছাড়া আত্রেয়ী নদীর জল ধরে রাখতে সক্ষম হবে এই চেক ড্যাম। যার ফলে আবারো জীবিকা ফিরে পাবে মৎসজীবী থেকে কৃষক সকলেই। বালুরঘাট শহরে আত্রেয়ী নদীর উপর বাধ দেওয়ায় আত্রেয়ী নদীর জল আটকে রাখা সম্ভব হবে। যার ফলে সেচের ক্ষেত্রে কিছুটা লাভবান হবে আত্রেয়ী পাড়ের মানুষেরা।৷

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.