Thu. Apr 25th, 2024

শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের ঘরে দুটি আত্মহত্যার ঘটনার পর থেকেই ভূতের আতঙ্ক। আতঙ্কে কমছে পড়ুয়ার সংখ্যা। শিক্ষা কেন্দ্রটি বন্ধের আশঙ্কায় শিক্ষিকারা

1 min read

আজকেরবার্তা, জলপাইগুড়ি, ২২ এপ্রিলঃ ভুতের আতঙ্কে প্রায় বন্ধ হওয়ার মুখে একটি শিশু শিক্ষা কেন্দ্র। শিশু শিক্ষা কেন্দ্রর ঘরে পরপর দুটি আত্মহত্যার ঘটনায় এই আতঙ্ক ছড়িয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের মনে। ঘটনাটি ঘটেছে ধুপগুড়ি তেতুলতলা কালিরহাটের এলাকায়। স্থানীয়সূত্রে জানা যায় কার দুই যুবক পর পর আত্মহত্যা করে ওই শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের ঘরে। তারপর থেকেই ভূতের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকাজুড়ে। ভূতের আতঙ্ক ছেড়ে শিশুরা রাস্তে নারাজ। তাই ক্রমাগত ভূতের ভয়ে বন্ধ হওয়ার মুখে শিশু শিক্ষা কেন্দ্র। শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের ঘরে দুটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটার পর থেকেই ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ভূতের আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এমনই ঘটনা ঘটছে ধূপগুড়ির কালীরহাটের তেঁতুল তলা এলাকার একটি শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে। জানাগেছে, গত বছর শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের মিড ডে মিলের রান্নাঘরে আত্মহত্যা করে স্থানীয় এক যুবক। তার কিছুদিন পরে ফের আরও এক যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় এই শিক্ষা কেন্দ্রের রান্নাঘর থেকেই। এর পর থেকেই পড়ুয়াদের মধ্যে ভূতের আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। ছাত্রছাত্রীদের পাশাপাশি আতঙ্ক তৈরি হয়েছে অবিভাবকদের মধ্যেও। পড়ুয়ারা স্কুলে আসলেও মিড ডে মিলের রান্নাঘরের আশপাশে যেতে চায় না। এই আতঙ্কে রান্নাঘরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে মিড ডে মিলের রান্না। শুধু তাই নয় এই আতঙ্কে দিন দিন কমছে শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে পড়ুয়ার সংখ্যা। আগে ছিল পড়ুয়ার সংখ্যা শতাধিক আর এখন তা কমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ৪২ এ। আবার অনেক ছাত্রছাত্রী স্কুলে আসতে চায় না। এর ফলে শিশু শিক্ষা কেন্দ্রটি বন্ধ হওয়ার আশঙ্কা করছেন শিক্ষিকারা। এই আতঙ্ক দূর করতে গ্রামবাসীদের মধ্যে কুসংস্কার বিরোধী প্রচার অবশ্যই জরুরী বলে মনে করছেন শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষিকারা।

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.