Sun. Apr 21st, 2024

একদিন নিখোঁজ থাকার পর বাড়ির পাসের খাড়ি সংলগ্ন ঝোপ থেকে উদ্ধার হল এক নাবালকের মৃতদেহ।

1 min read

আজকেরবার্তা, বংশীহারী, ২১জুনঃ একদিন নিখোঁজ থাকার পর বাড়ির পাসের খাড়ি সংলগ্ন ঝোপ থেকে উদ্ধার হল এক নাবালকের মৃতদেহ। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বংশীহারী থানার অন্তর্গত জামার এলাকায়। ঘটনার জেরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়। পুরো ঘটনার তদন্তে নেমেছে বংশীহারী থানার পুলিশ।
উল্লেখ্য সোমবার বিকেলে মৃত কিশোর সাগর মন্ডল বাড়ির পাশের একটি খেজুর গাছ থেকে খেজুর পাড়তে যাচ্ছি বলে বাড়ি থেকে বের হয়। ঘটনা দীর্ঘ সময় পার হয়ে যাবার পরও কিশোর বাড়ি না ফেরায় আশেপাশের এলাকায় খোঁজাখুঁজি শুরু করে পরিবারের সদস্যরা। বিকেল থেকে রাত অবধি খোঁজাখুঁজির পরও কোন রুপ হোদিস মেলেনি কিশোরের। দীর্ঘসময় খোঁজাখুঁজি করার পরও কোন খোঁজ না পাওয়ায় গতকাল রাতে বংশীহারী থানার নাবালকের নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগ দায়ের করে পরিবার।
অভিযোগ দায়েরের পর নাবালকের হদিস না মেলায় পরিবারের তরফ থেকে চলতে থাকে খোঁজাখুঁজি। রাত পার হয়ে সকাল হলে এলাকার কিছু স্থানীয় বাসিন্দারা বাড়ির পাশের খারি ও তার সংলগ্ন ঝোপে যায় কিশোরের খোঁজে। সেখানেই ওই কিশোরের মৃতদেহ দেখতে পায় স্থানীয় বাসিন্দারা।
ঘটনায় খবর দেওয়া হয় বংশীহারী থানায়। বংশীহারী থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে প্রথমে রশিদপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। তারপর বংশীহারী থানার পুলিশের উদ্যোগে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট জেলা হাসপাতালে পুলিশ মর্গে পাঠায়।
কিশোরের পরিবারের অনুমান অপহরণ করে খুন করা হয়েছে মৃত সাগর মন্ডল কে। এখন প্রশ্ন শুধু একটাই মাত্র সাড়ে সাত বছরের শিশুকে কি কারনে কেউ খুন করবে। কি রয়েছে এই খুনের পিছনের আসল ঘটনা। সেই সমস্ত কিছু নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে বংশীহারী থানার পুলিশ।

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.