Mon. May 27th, 2024

রাজ্য জুড়ে চলা আদিবাসী সমাজ বিরোধী আচরণের বিরুদ্ধে সোমবার ১২ঘন্টার বাংলা বনধের ডাক দিয়েছে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান।

1 min read

 

আজকেরবার্তা, বালুরঘাট, ২১ মে: রাজ্য জুড়ে চলা আদিবাসী সমাজ বিরোধী আচরণের বিরুদ্ধে সোমবার ১২ঘন্টার বাংলা বনধের ডাক দিয়েছে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। মোট ৪ দফা দাবি নিয়ে এবারে বাংলা বনধের ডাক দিয়েছে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমেটি ।

আদিবাসী সমাজের সাংবিধানিক ন্যায় প্রশাসনিক ভবে না পাওয়ার অভিযোগ তুলে আগামী সোমবার ১২ ঘন্টার বাংলা বনধের ডাক দিয়েছে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। সারা রাজ্য জুড়ে চলা একাধিক আদিবাসী বিরোধী আচরণের প্রতিবাদে এই বনধ বলে জানায় আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমেটির দক্ষিন দিনাজপুর জেলা শাখার নেতৃত্বরা।

আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযানের দাবি, বিগত ২০২১ সালে পুরুলিয়া জেলার হুরা থানার জবড়রা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মোরজঙ্গলপুর গ্রামের শতাধিক আদিবাসী পরিবারকে মাঝি পারগানা মহলের জেলা পরগনা থেকে বহিষ্কার করার অভিযোগ তোলে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। তাদের দাবি ঘটনার পর বহুদিন পার হয়ে গেলেও এখনো পুলিশ প্রশাসন ও রাজ্য সরকার নির্বাক।

তাদের আরো অভিযোগ, ঝাড়গ্রাম জেলার জামবানি থানার কেশরীপুর গ্রামের গুরুচরণ হেমব্রম নামক এক ব্যেক্তিকে মাঝি পরগনা থেকে বিগত বেশ কিছু বছর ধরে সামাজিক বহিষ্কার করা হয়। বহিষ্কারের ঘটনার জেরে তার বাবার মৃত্যুর পর শ্রাদ্ধানুষ্ঠান করতেও বাঁধা দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। ঘটনায় পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হওয়ায়, পুলিশ প্রশাসন বিষয়টিকে সামাজিক বিষয় বলে অবহেলা করে হলেও অভিযোগ তোলে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান।

আদিবাসী সমাজের আইন কানুন লাগু করার দাবি জানিয়েছে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। সম্প্রতি, পশ্চিমবঙ্গ সরকার দ্বারা কুর্মি ও মাহাতোদের আদিবাসী সমাজের সাথে যুক্ত করার প্রস্তাবের প্রতিবাদ জানায় আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। কুর্মি ও মাহাতোদের আদিবাসী সমাজের অন্তর্ভুক্ত করা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আদিবাসী বিরোধী চক্রান্ত বলেও দাবী করে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান।

পাশাপাশি, দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় আদিবাসী মহিলাদের রাস্তায় দণ্ডী কাটানোর ঘটনায় মুল অভিযুক্ত প্রদিপ্তা চক্রবর্ত্তীকে গ্রেফতারের দাবি তোলে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। আদিবাসী মহিলাদের উপর অমানবিক অত্যাচারের প্রতিবাদে সরব হয়েছে সমস্ত আদিবাসী সমাজ। আদিবাসী মহিলাদের রাস্তায় দণ্ডী কাটানোর বা নাক খত দেওয়ানো সমস্ত আদিবাসী সমাজের অপমান বলে অভিযোগ তোলে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। তাই দণ্ডী কান্ডের মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার দাবিতে সোমবার ১২ ঘন্টার বাংলা বনধের দাবি তোলে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান।

এই চার দফা দাবি তুলে সোমবার ১২ ঘন্টার সারা রাজ্য বনধের ডাক দিয়েছে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান। এদিন দক্ষিন দিনাজপুর জেলা আরক্ষাধীক্ষকের কাছে এই বনধের কারণ সম্মেলিত একটি দাবি পত্র জমা করে আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান পশ্চিম বঙ্গ কমেটির দক্ষিন দিনাজপুর জেলা শাখা।

 

 

 

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.