Thu. Apr 25th, 2024

বালুরঘাটে পৌরসভার চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল পদ নিয়ে মতভেদ বালুরঘাট পৌরসভার পৌরাধক্ষ ও তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতির। পুনরায় পরিবর্তিত হলো চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিলের নাম

1 min read

আজকেরবার্তা, বালুরঘাট ২১এপ্রিলঃ বালুরঘাটে পৌরসভার চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল পদ নিয়ে মতভেদ বালুরঘাট পৌরসভার পৌরাধক্ষ ও তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতির। বালুরঘাট পৌরসভার নতুন বোর্ডের প্রথম বোর্ড মিটিংয়ে ঘোষিত চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল পদ নিয়ে দেখা গেল মতভেদ। ঘটনায় পৌরসভায় চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। দফায় দফায় কাউন্সিলরদের নিয়ে মিটিং এবং পাল্টা মিটিং দেখা দিচ্ছে।
বালুরঘাট পৌরসভার নবনির্বাচিত কাউন্সিলরদের (তৃনমূলের ২৩ জন এবং বামফ্রন্টের ২জন) উপস্থিতিতে চলতি মাসের ১৯ তারিখ পৌরসভার প্রশাসনিক বৈঠকে তিন জন চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল নিয়ে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে এবং তিনজনের নাম ঘোষণা করেন পৌরসভার চেয়ারম্যান অশোক মিত্র। সর্বসম্মতিক্রমে নীতা নন্দী, শিখা মহন্ত সাহা চৌধুরী এবং সুরজিৎ সাহার নাম ঘোষণা করেন চেয়ারম্যান।
এই তিনজন কাউন্সিলারের নাম ঘোষণা করতেই শুরু হয় তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্ব। তৃনমূল জেলা নেতৃত্ব এই তিনজনের নাম বৈধ নয় বলে ঘোষণা করেন এবং তারপর ২০ তারিখ জেলার কোর কমিটির মিটিংয়ে পৌরসভার গৃহীত সিদ্ধান্ত বাতিল করে নতুন তিন জনের নাম ঘোষণা করেন জেলা সভাপতি উজ্জ্বল বসাক। বিপুল কান্তি ঘোষ, মহেশ পারেখ এবং অনোজ সরকার কে নতুন চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল ঘোষণা করে দল। সিআইসি কারা থাকবেন তা নিয়ে দল মাথা ঘামাতে পারে কিনা সে বিষয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এই বিষয়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি উজ্জল বসাক জানিয়েছেন, চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল পদের যে তিনটি নাম ঘোষণা হয়েছে তা ভুল বোঝাবুঝির কারণে হয়েছে। নামগুলি পরিবর্তন হবে বলেও তিনি জানান।
এই ঘটনার পর এদিন জেলা তৃণমূল কার্যালয়ে বালুরঘাট পৌরসভার বেশকিছু কাউন্সিলার দের নিয়ে বৈঠক করেন তৃণমূল জেলা সভাপতি উজ্জ্বল বসাক।
অপরদিকে, এরপর‌ই বালুরঘাট পৌরসভায় সমস্ত তৃনমূল কাউন্সিলরদের নিয়ে মিটিং করেন চেয়ারম্যান অশোক মিত্র।
বৈঠক শেষে বোর্ড মিটিংয়ে পাস হওয়া তিনজন চেয়ারম্যান অ্যান্ড কাউন্সিলরদের নাম তৃণমূল জেলা সভাপতির নির্দেশ মতো পরিবর্তন হবে কিনা, সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে চেয়ারম্যান অশোক মিত্র জানান, পৌরসভার সংক্রান্ত একটি বিষয় ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি পৌর মন্ত্রী কে জানানো হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন এ বিষয়ে রাজ্য নেতৃত্ব থেকে যে নির্দেশ আসবে সেই নির্দেশ মত তা পালন করা হবে।

এদিকে, যেভাবে পৌর প্রশাসন এর ভিতরে দল নাক গলাতে শুরু করেছে তাতে আগামী দিনে পৌরসভার কাজ করতে অসুবিধা হবে কিনা চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য আধিকারিকদের তা ভবিষৎ বলবে। তবে এবিষয়ে বিজেপি কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। বিজেপি জেলা সভাপতি স্বরূপ চৌধুরী জানান, বালুরঘাট পৌরসভার কাজে যেভাবে দলের অন্তর্দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে তাতে পুর পরিষেবা বা পুরসভার উন্নয়নের কাজে বাধা সৃষ্টি হবে, যার ফল পুর নাগরিক দের ভুগতে হবে।

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.