Thu. Apr 25th, 2024

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা বহন করে চলেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হিলি মহাশ্মশানে অনুষ্ঠিত বাউল উৎসব।

1 min read

আজকেরবার্তা, হিলি, ২০মেঃ ‘মোরা একই বৃন্তে দুটি কুসুম হিন্দু মুসলমান মুসলিম তার নয়ন মনি হিন্দু তাহার প্রাণ’। কাজী নজরুল ইসলামের এই লাইনগুলি যেনো মানুষের মনে ঘর করে রয়েছে। আর এই ভাবেই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দিয়ে বিগত পঞ্চাশ বছর ধরে চলে আসছে হিলির বাউল অনুষ্ঠান। যেখানে হিন্দু মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের মানুষেরা একত্রিত হয়ে আয়োজন করে বাউল উৎসবের। দীর্ঘ 50 বছর ধরে একই রীতি মেনে চলে আসছে এই বাউল অনুষ্ঠান। যেখানে দেখা যায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক অনন্য নজির।
পশ্চিমবঙ্গ কোনায় কোনায় দেখতে পাওয়া যায় বিভিন্ন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নজির। কেমনি একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা বহন করে চলেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হিলি ব্লকের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের কাছেই হিলি মহাশ্মশানে অনুষ্ঠিত হওয়া বাউল উৎসব।বিগত পঞ্চাশ বছর ধরে হয়ে আসছে বিশাল বাউল উৎসব। হিন্দু মুসলমান উভয় সম্প্রদায়ের বাউল উৎসব শুধু হিন্দুদের উৎসবে থেমে নেই হিন্দু-মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের মিলেমিশে একাকার হয়ে গেছে এই উৎসবে।
বৃহস্পতিবার রাতে এই বাউল উৎসবের শেষ দিনে বেশ কয়েক হাজার মানুষ পাত পেড়ে অন্ন গ্রহণ করলেন। জানা গেছে 50 তম বর্ষে বিগত তিনদিন ধরে এই অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে যেখানে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের বাউল শিল্পীরা অংশগ্রহণ করেন। কমিটির সদস্যদের কথায় এখানে হিন্দু-মুসলমান সকলেই ভাই-ভাই সকলেই একসঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমরা এই বাউল উৎসব করি। ভাইরা না থাকলে এখানে বাউল উৎসব করা সম্ভব হতো না। এই ভাবেই ভারত-বাংলাদেশের একদম সীমান্তে এই বাউল উৎসব একটি অনন্য নজির তৈরি করেছে।

 

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.