Thu. Feb 29th, 2024

তিনবছর আগের পুরনো ভিডিও নতুন করে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে সরব উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার বালুরঘাট ডিপো কর্তৃপক্ষ।

1 min read

আজকেরবার্তা, বালুরঘাট, ৯ সেপ্টেম্বরঃ তিনবছর আগের পুরনো ভিডিও নতুন করে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে সরব উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার বালুরঘাট ডিপো কর্তৃপক্ষ। বছর কয়েক আগে জনা কয়েক কর্মীর মদ্যপান ও জুয়া খেলার ঘটনায় এর আগেই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল বলে দাবি ডিপো ইনচার্জের। নতুন করে সেই ভিডিও প্রকাশ্যে এনে ডিপোকে বদনাম করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী পদক্ষেপ নিচ্ছেন বলে জানান ডিপো আধিকারিক প্রশান্ত সরকার।
উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার বালুরঘাট ডিপোটি রয়েছে শহরের নারায়ণপুর এলাকার। সেখান থেকে দিন রাতে চলাচল করে সমস্ত সরকারি বাসগুলি। বছর কয়েক আগে তৈরি বিল্ডিংয়ে রয়েছে টিকিট কাউন্টার সহ অনান্য কটি বিভাগ। ডিপো সূত্রে খবর, সেই বাসস্ট্যান্ডে নির্জন জায়গায় রাতে কয়েকজন কর্মীর মদ্যপান ও জুয়া খেলার একটি ভিডিও ছড়ানো হয়েছে। এতেই শোরগোল পরে যায় এলাকায়। বিষয়টি নজরে আসতেই কর্তৃপক্ষ এনিয়ে খোঁজখবর করে। এরপরেই সেটি তিনবছর আগের একটি পুরনো ভিডিও বলে জানতে পারেন তারা। যা নিয়ে অনেক আগেই ওই কর্মীদের বিরুদ্ধে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ বিভাগীর পদক্ষেপ নিয়েছে। পুনরায় এই ভিডিও কে বা কাহার সামনে এনে ডিপোকে বদনাম করছে তা নিয়েই আইনিপথে কর্তৃপক্ষ। বালুরঘাট ডিপো আধিকারিক প্রশান্ত সরকার বলেন, খোঁজখবর করে আমাদের কাছে যে তথ্য এসেছে তাতে সেই ভিডিও কয়েকবছর আগের পুরনো। মদ্যপান ও জুয়ার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে এর আগে তৎকালীন ডিভিশনাল ম্যানেজার(রায়গঞ্জ) সুবীর সাহা শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছিলেন। সেটি আবার ছড়ানো হয়েছে ষড়যন্ত্র করে। ভিডিওটি এতবছর কার কাছে ছিল তা আমরা জেনেছি। আমাদের ডিপোর এক কর্মী এই ভিডিও ছড়াতে সাহায্য করেছেন। সেই কর্মীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিচ্ছি আমরা। ইতিমধ্যে রায়গঞ্জে ডিভিশনাল ম্যানেজারকে লিখিতভাবে জানিয়েছি । পেছনে আরো কয়েকজন রয়েছে। জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন সহ সমস্ত পর্যায়ে লিখিত অভিযোগ জানিয়ে আসল ঘটনা সামনে আনছি আমরা।
পাশাপাশি ওই ডিপোর তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের নেতা গোপাল সাহা ডিপো আধিকারিকের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেন, এর পেছনে কয়েকজন কর্মী জড়িত। যারা নিজেদের উদ্দেশ্য সাধন করতে না পেরে পুরনো ভিডিও প্রকাশ্যে আনতে সাহায্য করেছেন কাউকে।
ডিপোর নাম বদনাম করা হয়েছে। যা কোনভাবেই মানা যায়না। আমরা সমস্ত কর্মীদের কাছে এর প্রতিবাদে স্বাক্ষর সংগ্রহ করছি। দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে আমরা সবসময় পাশে রয়েছি ডিপো আধিকারিকের।

 

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.