Sun. Apr 21st, 2024

ভিনরাজ্যে কাজে গিয়ে বন্ধুর হাতে খুন মালদার যুবক।

1 min read

আজকের বার্তা, ৮জুলাই, মালদা :-
ভিনরাজ্যে কাজে গিয়ে বন্ধুর হাতে খুন মালদার যুবক। মৃত যুবকের নাম প্রসেনজিৎ ঘোষ(১৮)। সোমবার মৃতদেহ বাড়ি ফিরে আসতেই অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে দেহ গ্রামের রাস্তায় রেখে দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ দেখায় মৃতার পরিজনেরা। মালদার কালিয়াচক থানার ভবানীপুর গ্রামের ঘটনায় পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

পরিবার সূত্রে জানাগেছে, কালিয়াচক ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের ভবানীপুর গ্রামের বাসিন্দা বিকাশ চন্দ্র ঘোষ। তার দুই ছেলে এক মেয়ে। আর্থিক অনটনের কারণে শ্রমিকের কাজ করে প্রসেনজিৎ ধরেছিল সংসারের হাল। ১৬ দিন আগে শ্রমিকের কাজ করতে প্রসেনজিৎ গ্রামেরই কয়েকজনের সাথে গুজরাটের আমেদাবাদ যায়। গত শুক্রবার সানি শেখ নামে গ্রামেরই এক সঙ্গীর সাথে কোনো এক কারণ নিয়ে বচসা হয় তার। অভিযোগ তখনই তার মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করে সানি শেখ। সেদিন রাতেই পরিবারের কাছে ফোন করে সমস্ত ঘটনা জানায় প্রসেনজিৎ। পরে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তার। সোমবার সকালে প্রসেনজিৎ ঘোষের নিথর দেহ ফিরে আসতেই গ্রাম নামে শোকের ছায়া। ভবানীপুর বাঁধের ওপর দেহ রেখে বিক্ষোভ দেখায় গ্রামবাসী। অভিযুক্ত সানি শেখকে গ্রেফতারের পাশাপাশি কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন মৃত যুবকের পরিজনেরা। এরপর কালিয়াচক থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
মৃত যুবকের বাবা বিকাশ ঘোষ জানান, আমার দুই ছেলে এক মেয়ে। আমার একটি চোখ অন্ধ। এই প্রসেনজিৎ আমাদের সংসারের হাল ধরে ছিলো।সকলের জন্য বাইরে গিয়ে কাজ করছিলো। গ্রামেরই ছেলে সানি শেখ ছেলেকে খুব মারধর করে। সেখানে চিকিৎসায়ও হয়নি ফলে মৃত্যু হয় ছেলের।এখন আমার গোটা পরিবারই অন্ধ হয়ে গেল। আমার ক্ষতির যেনো সুবিচার হয়।পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছি।সানির যেনো কঠোর শাস্তি হয়।

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.