Sun. Apr 21st, 2024

নাংডালা চা বাগানে খাঁচাবন্দি চিতা। আতঙ্ক মুক্ত চা শ্রমিকরা

1 min read

 

আজকেরবার্তা, আলিপুরদুয়ার, ৮মেঃ অবশেষে আতঙ্ক মুক্ত হলো নাংডালা চাবাগান একালা। খাচাবন্দী হল চিতাবাঘ। রবিবার সকালে খাচাবন্দী অবস্থায় চিতাবাঘটি উদ্ধার হয় মাদারিহাট-বীরপাড়া ব্লকের নাংডালা চা বাগানে। চিতাবাঘ খাঁচা বন্দি হওয়ার ঘটনা চড়াও হতেই এলাকায় ভিড় জমায় বহু মানুষ। কিছুক্ষণের জন্য বন্ধ হয়ে যায় চা-বাগানের কাজকর্ম। এরপর বনদপ্তর থেকে এসে চিতাবাঘটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।
প্রসঙ্গত বেশ কয়েকদিন থেকেই নাংডালা বাগান এলাকায় উপদ্রব চালাচ্ছিল এই চিতাবাঘ টি। চিতা বাঘের আতঙ্কে ছিল চা বাগানের শ্রমিকরা। চা বাগানে মাঝে মাঝেউবউপদ্রব দেখা গিয়েছিল চিতাবাঘের।
চিতা বাঘের আতঙ্ক ঝড়ে ব্যাহত হচ্ছিল চা বাগানের কাজ। ঘটনায় দলগাঁও বনদপ্তর কে খবর দেওয়া হয়। বনদপ্তর এর কর্মীরা এসে চা বাগান চত্বরে চিতাবাঘ ধরার জন্য খাঁচা বসায়। পরবর্তীতে সেই খাচাতেই বন্দী হয় একটি পূর্ণ বয়ষ্ক পুরুষ চিতাবাঘ। রবিবার সকালে চা বাগানের ১৫নং সেস্কনের খাচাতেই বন্দী হয় একটি পূর্ণ বয়ষ্ক পুরুষ চিতাবাঘ। সকালে চা বাগানের কর্মীরা চা বাগানে আসলেই খাঁচায় বন্দী অবস্থায় চিতাবাঘটি নজরে আসে তাদের। ঘটনার কথা চড়াও হতে এই চা বাগানে স্থানীয় বাসিন্দারা ভিড় জমায় চিতাবাঘ দেখতে। এরপর দলগাঁও বনদপ্তর কে খবর দেওয়া হলে বনদপ্তর এর কর্মীরা এসে চিতাবাঘটিকে নিয়ে যায়।
দলগাঁও রেঞ্জের রেঞ্জার অশেষ পাল জানান, চা শ্রমিকদের থেকে খবর পেয়ে চিতাবাঘ ধরতে খাঁচা পাতা হয়েছিল চাবাগানের ১৫ নম্বর সেকশনে। সেখানেই ধরা পরে চিতা। চিতাটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে এদিন দুপুরেই ছাড়া হয়েছে পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে। বেশকিছুদিন চিতার আঅঙ্কে দিন কাটানোর পর নাংডালা চা বাগানে চিতা ধরা পড়ায় অনেকটাই আতঙ্কমুক্ত চা শ্রমিকরা।

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.