Sun. Apr 21st, 2024

রশিদপুর গ্রামীণ হাসপাতালে আবর্জনার স্তুপ থেকে উদ্ধার সদ্যোজাত শিশু

1 min read

আজকের বার্তা, বুনিয়াদপুরঃ হাসপাতালের পেছনের আবর্জনার স্তুপ থেকে উদ্ধার ফেলে যাওয়া সদ্যোজাত শিশু।
ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ালো দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বংশিহারি ব্লকের রশিদপুর গ্রামীণ হাসপাতালে। এদিন কর্তব্যরত সিভিক ভলেন্টিয়াররা হাসপাতালের পিছনে আবর্জনা থেকে একটি সদ্যজাত শিশুর কান্না শুনতে পান।
খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ছুটে আসে হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা। এরপরই সদ্যোজাত শিশুর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, বর্তমানে শিশুটির শারীরিক অবস্থা ঠিকঠাক রয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর উদ্ধার হওয়া সদ্যোজাত শিশুটি কে স্থানান্তরিত করা হবে। কি কারনে সদ্যোজাত শিশুটিকে নোংরা আবর্জনায় ফেলে পালিয়ে গেল শিশুর পিতা মাতা তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বিভিন্ন মহলে।
হাসপাতালে পিছনের ভাগাড় থেকে উদ্ধার সদ্যোজাত শিশু। কে বা কাহারা এই শিশুটিকে ফেলে গেল রশিদপুর গ্রামীণ হাসপাতাল এর পিছনের আবর্জনার স্তুপে, তা নিয়ে উঠছে নানান প্রশ্ন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে শুরু করে হাসপাতালের কর্তব্যরত গার্ড এবং সিভিক ভলেন্টিয়ার, সকলের নজর এড়িয়ে কিভাবেই বা হাসপাতালে ঠিক পেছনে আবর্জনার স্তূপে সদ্যোজাত শিশুকে ফেলে পালালো অভিভাবক তা নিয়েও সৃষ্টি হচ্ছে নানান জল্পনার।
শুক্রবার সকালে রশিদপুর গ্রামীণ হাসপাতালে কর্তব্যরত সিভিক ভলেন্টিয়ার হাসপাতালে পিছন থেকে একটি সদ্যজাত শিশুর কান্না শুনতে পায় সে সময় সে সেখানে ছুটে গিয়ে দেখে আবর্জনার স্তুপের উপরে পড়ে রয়েছে একটি সদ্যজাত শিশু। যার শরিরে তখনও রক্ত লেগে ছিল। এমন অবস্থায় কে বা কাহারা এই শিশুটিকে ফেলে রেখে গেল তা উঠছে নানান প্রশ্ন।
হাসপাতালে চিকিৎসক জানান তিনি ওপিডিতে ছিলেন সে সময় এক সিভিক ভলেন্টিয়ার এসে জানান যে হাসপাতালে পিছনের আবর্জনার স্তুপ থেকে উদ্ধার হয়েছে ওই সদ্যোজাত শিশু। শিশুটির প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পরবর্তীতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে বংশীহারি থানার পুলিশকে ঘটনাটি জানানো হয় এবং সদ্যোজাত শিশুটির বাবা মার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে বংশীহারি থানা পুলিশ।
কিন্তু প্রশ্ন শুধু একটাই! হাসপাতালে কড়া নিরাপত্তাব্যবস্থা সত্ত্বেও কিভাবে হাসপাতালে ঠিক পেছনে থেকে উদ্ধার হল অভিভাবকহীন রক্তমাখা সদ্যোজাত শিশু?

You may have missed

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.